Text size A A A
Color C C C C
পাতা

সিটিজেন চার্টার

 

 

সিটিজেন চার্টার

(গ্রাহক সেবা নির্দেশিকা)

 

টেলিফোন/মোবাইল নম্বরঃ

 

১। সদর দপ্তরঃ

ক) জেনারেল ম্যানেজার-                                                            ০১৭৬৯৪০০০৩৪

খ) অভিযোগ কেন্দ্র (টেলিফোন)-                                       ০৫৭১-৬৩০০       

গ) অভিযোগ কেন্দ্র (মোবাইল)-                                         ০১৭৬৯৪০১২৪৬

ঘ) ফ্যাক্সঃ-                                                                ০৫৭১৫১০৬৩

ঙ) ই-মেইলঃ                                                              gmjoypurhatpbs@gmail.com

চ) ওয়েব সাইডঃ                                                          www.joypurhatpbs.org

 

২। পাঁচবিবি জোনাল অফিসঃ

ক) ডেপুটি জেনারেল ম্যানেজার-                                        ০১৭৬৯৪০০১৬০

খ) অভিযোগ কেন্দ্র (টেলিফোন)-                                       ০৫৭২৪-৭৫২৬৬

গ) অভিযোগ কেন্দ্র (মোবাইল)-                                         ০১৭৬৯৪০১২৪৯

 

৩। আক্কেলপুর জোনাল অফিসঃ

ক) ডেপুটি জেনারেল ম্যানেজার-                                        ০১৭৬৯৪০০১৫৯

খ) অভিযোগ কেন্দ্র (টেলিফোন)-                                       ০৫৭২২-৬৪২৪২

গ) অভিযোগ কেন্দ্র (মোবাইল)-                                         ০১৭৬৯৪০১২৫২

 

 

৪। কালাই এরিয়া অফিসঃ

অভিযোগ কেন্দ্র-                                                           ০১৭৬৯৪০১২৪৭

 

১। ক্ষেতলাল এরিয়া অফিসঃ

অভিযোগ কেন্দ্র-                                                           ০১৭৬৯৪০১২৪৮

 

৫। অভিযোগ কেন্দ্র সমুহঃ

ক) জামালগঞ্জ অভিযোগ কেন্দ্র-                                         ০১৭৬৯৪০১২৫৩

খ) জামতলী অভিযোগ কেন্দ্র-                                           ০১৭৬৯৪০১২৫১

গ) রায়কালী অভিযোগ কেন্দ্র-                                           ০১৭৬৯৪০১২৫৪

ঘ) সালাইপুর অভিযোগ কেন্দ্র-                                           ০১৭৬৯৪০১২৫০

ঘ) দুর্গাপুর অভিযোগ কেন্দ্র-                                              ০১৭৩০৭৮৩৩৪৫

 

গ্রাহকের জ্ঞাতব্য বিষয়

 

 

§        সান্ধ্যকালীণ সময়ে(পিক-আওয়ারে) বিদ্যুৎ ব্যবহারে সাশ্রয়ী হোন। আপনার সাশ্রয়কৃত বিদ্যুৎ অন্যকে আলো জ্বালাতে সহায়তা করবে।

§        সংযোগ বিচ্ছিন্ন এড়াতে নিয়মিত বিদ্যুৎ বিল পরিশোধ করুন এবং বিলম্ব মাশুল পরিশোধের ঝামেলা থেকে মুক্ত থাকুন

§        বিদ্যুৎ বিল সাশ্রয়কল্পে মানসম্মত এনার্জি সেভিং বাল্ব (CFL) ও বৈদ্যুতিক সরঞ্জাম ব্যবহার করুন রাস্তা, শিল্পকারখানা, বানিজ্যিক এবং আবসিক এলাকায় নিরাপত্তা বাতিসমুহ Emitting Diode (LED) বাতি ব্যবহার করুন।

§        টিউব লাইটে Electronic Ballastব্যবহার করে বিদ্যুৎ সাশ্রয় করুন ।

§        বিদ্যুৎ একটি মূল্যবান জাতীয় সম্পদ। দেশের বৃহত্তর স্বার্থে এই সম্পদের সুষ্ঠু ও পরিমিত ব্যবহারের ভূমিকা রাখুন ।

§        বৎসরান্তে পল্লী বিদ্যুৎ সমিতি হতে বিদ্যুৎ বিল পরিশোধের প্রমান পত্র প্রদান করা হয়ে থাকে (আবাসিক গ্রাহকের জন্য) ।

§        মিটার রক্ষণাবেক্ষণের দায়িত্ব আপনার। এর সঠিক সুষ্ঠু অবস্থা ও সীল সমূহের নিরাপত্তা নিশ্চিত করুন ।

§        বিল সংক্রান্ত যে কোন অভিযোগ যেমনঃ চলতি মাসের বিল পাওয়া যায়নি, বকেয়া বিল, অতিরিক্ত বিল ইত্যাদির জন্য ‘‘এক অবস্থান সেবা কেন্দ্র’’ এ যোগাযোগ করলে তাৎক্ষনিক সমাদান সম্ভব হলে তা নিস্পত্তি করা হবে। অন্যথায় জানিয়ে দেওয়া হবে।

§        বিদ্যুৎ চুরি ও এর অবৈধ ব্যবহার থেকে নিজে বিরত থাকুন ও অন্যকে নিবৃত করুন। বিদ্যুৎ চুরি ও এর অবৈধ ব্যবহার রোধে আপনার জ্ঞাত তথ্য পবিস এর ‘‘এক অবস্থান সেবা/অভিযোগ কেন্দ্র’’ এ অবহিত করে সহযোগিতা করা আপনার দায়িত্ব।

§        বিল পরিশোধঃ সলগ্ন ব্যাংক বুধ/নির্ধারিত ব্যাংক অথবা সমিতির সদর /জোনাল অফিসে গ্রাহক বিল পরিশোধ করতে পারবেন।

§        ইদানিং একটি সংঘবদ্ধ অসাধু চক্র চালু লাইন হতে ট্রান্সফরমার/ বৈদ্যুতিক যন্ত্রপাতি/তার চুরির সাথে জড়িত। সুতরাং আপনার এলাকার উপরিউক্ত চুরি রোধে তথ্য দিয়ে সহযোগিতা করুন ।

 

শ্রেণী ভিত্তিক বিদ্যমান বিদ্যুতের মূল্যহার

(সেপ্টেম্বের/২০১২ হতে প্রযোজ্য)

 

ক্রঃ নং

গ্রাহক শ্রেণী

প্রতি ইউনিট মূল্য (টাকায়)

০১

আবাসিকঃ

(ক) প্রথম ধাপঃ ০০ হতে ৭৫ ইউনিট

৩.৮৫

(খ) দ্বিতীয় ধাপঃ ৭৬ হতে ২০০ ইউনিট

৪.৬৩

(গ) তৃতীয় ধাপঃ ২০১ হতে ৩০০ ইউনিট

৪.৭৯

(ঘ) চতুর্থ ধাপ ঃ ৩০১ হতে ৪০০ ইউনিট

৭.১৬

(ঙ) পঞ্চম ধাপঃ ৪০১ হতে ৬০০ ইউনিট

৭.৪৮

(চ) ষষ্ঠ ধাপ   ঃ ৬০০ ইউনিট এর উর্দ্ধে

৯.৩৮

০২

শ্রেনীঃ কৃষি কাজে ব্যবহৃত পাম্প

৩.৮৪

০৩

শ্রেণীঃ জিপি/এলপি (শিল্প)

ক) জিপি (শিল্প) ০১ হতে ৭৫০ কেভিএ পর্যন্ত

৬.৯৫

খ) বৃহৎ শিল্প (এলপি) ৭৫০ কেভিএ এর উর্দ্ধে

৬.৮১

০৪

বাণিজ্যিকঃ প্রতি ইউনিট

৯.০০

০৫

দাতব্য প্রতিষ্ঠানঃ প্রতি ইউনিট

৪.৫৩

০৬

রাস্তার বাতিঃ

৬.৪৮

 

উপরোক্ত বিদ্যুতের মূল্যহারের সাথে ন্যুনতম চার্জ, ডিমান্ড চার্জ, সার্ভিস চার্জ ও অন্যান্য শর্তাবলীসহ মূল্য সংযোজন কর যথারীতি প্রযোজ্য হবে। বিদ্যুতের মূল্যহার সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষ কর্তৃক অনুমোদিত এবং পরিবর্তনযোগ্য ।

 

গ্রাহক সেবা

 

সমিতির দপ্তর সমুহে ‘‘এক অবস্থান সেবা কেন্দ্র’’ এ নতুন বিদ্যুৎ সংযোগ, বিলিং মিটার সংক্রান্ত অভিযোগ, বিল পরিশোধের ব্যবস্থা সহ সকল ধরনের অভিযোগ জানানো যাবে এবং এতদসংক্রান্ত বিষয়ে তথ্য পাওয়া যাবে ।

 

১। নতুন সংযোগ গ্রহণ ঃ

 

‘‘এক অবস্থান সেবা কেন্দ্র’’ থেকে নতুন সংযোগের আবেদন পত্র পাওয়া যাবে। আবেদন পত্রটি যথাযথভাবে পুরণ করে আবেদন পত্রের সাথে ছবি ও প্রয়োজনীয় দলিলাদি (অনুচ্ছেদ -২ মোতাবেক) সহ নির্ধারিত সমিক্ষা ফি জমা গ্রহণ করে জমা রশিদ প্রদান করা হয়। পরবর্তী প্রয়োজনীয় সমীক্ষা এবং ষ্টেকিং কার্য সম্পন্ন শেষে কর্তৃপক্ষ কর্তৃক সংযোগ অনুমোদনের পর (প্রযোজ্য ক্ষেত্রে গ্রাহক কর্তৃক ট্রান্সফরমার ও আনুসাঙ্গিক মালামাল সরবরাহ এবং সোলার প্যানেল স্থাপন শর্তে) সংযোগ ছাড় পত্র, ডিমান্ড নোট ইস্যু করা হয়।  লাইন নির্মানের প্রয়োজন  হলে ডিমান্ড নোটে উল্লেখিত নির্মান ব্যয় সমিতির অনুকুলে ক্যাশ শাখায় জমা প্রদান করতে হবে। প্রয়োজনীয় মালামাল প্রাপ্তি স্বাপেক্ষে লাইন নির্মান করা হবে। সংযোগ স্থলে সমিতির অনুমোদিত ইলেকট্রিশিয়ান দ্বারা মান অনুযায়ী (মটর লোডের ক্ষেত্রে পাওয়ার ফ্যাক্টর ক্যাপাসিটরসহ) ওয়্যারিং সম্পন্ন করতে হবে। ওয়্যারিং পরিদর্শনের পর লোড অনুযায়ী নির্ধরিত হারে জামানত প্রদান করতে হবে। জামানত প্রদানের পর সংযোগ প্রদানের ব্যবস্থা গ্রহণ করা হয়ে থাকে।

 

সংযোগ প্রদান সম্ভব না হলে কারণ জানিয়ে আবেদনকারীকে পত্র প্রদান করা হয়।

 

২। নতুন সংযোগের জন্য আবেদন পত্রের সাথে নিম্নোক্ত দলিদাদি দাখিল করতে হবেঃ

 

·        সংযোগ গ্রহনকারীর পাসপোর্ট সাইজের ০২কপি সত্যায়িত ছবি।

·        জমির মালিকানা দলিলের সত্যায়িত কপি।

·        জাতীয় আইডি কার্ড/জন্ম নিবন্ধন সনদের সত্যায়িত ফটোকপি।

·        সরকারী ভূমির লীজের ক্ষেত্রে অনুমোদিত কাগজাদি।

·        ভাড়া বাড়ী /ভবন এর ক্ষেত্রে ভাড়া চুক্তির দলিলাদি।

·        ট্রেড লাইসেন্স (প্রযোজ্য ক্ষেত্রে)।

·        সেচ সংযোগের ক্ষেত্রে আবেদন পত্রের সাথে উপজেলা সেচ কমিটি কর্তৃক প্রদত্ত সেচ লাইসেন্স সংযুক্ত করতে হবে।

·        সংযোগ স্থানের নির্দেশক নক্শা (প্রযোজ্য ক্ষেত্রে)।

·        শিল্প প্রতিষ্ঠান স্থাপনের নিমিত্তে যথাযথ কর্তৃপক্ষের অনুমোদন।

·        পরিবেশ অধিদপ্তর ও বন বিভাগের প্রয়োজনীয় ছাড়পত্র (প্রযোজ্য ক্ষেত্রে)।

·        ফায়ার সার্ভিস সিভিল ডিফেন্স এর ছাড় পত্রের কপি(প্রযোজ্য ক্ষেত্রে)। 

 

 

৩। নতুন সংযোগের জন্য আবেদন সমীক্ষা ফিঃ

 

 

 

বাড়ী/বানিজ্যিক/দাতব্য প্রতিষ্ঠানে বিদ্যুৎ সংযোগের জন্য একক ও দলগত আবেদনের ক্ষেত্রে

ক) একক আবেদনের ক্ষেত্রে-

১০০/- টাকা

খ) ০২ থেকে ০৯ পর্যন্ত আবেদনের (জনপ্রতি) ক্ষেত্রে-

১০০/- টাকা

গ) ১০ থেকে ২০ জন পর্যন্ত গ্রুপ সম্বলিত আবেদনের ক্ষেত্রে(নির্ধারিত)

১৫০০/- টাকা

ঘ) ২১ জন ও তদুর্ধের গ্রুপ সম্বলিত আবেদনের ক্ষেত্রে (নির্ধারিত)

২০০০/- টাকা

 সেচ সংযোগের জন্য

২৫০/- টাকা

যে কোন ধরনের অস্থায়ী সংযোগের জন্য

১৫০০/- টাকা

উপরে বর্নিত সংযোগ ও শিল্প প্রতিষ্ঠান ব্যতিত অন্য কোন সাময়িক/স্থায়ী সংযোগের জন্য

১৫০০/- টাকা

পোল স্থানান্তর /লাইন রুট পরিবর্তন/সমিতি কর্তৃক স্থাপিত অন্য গ্রাহকের সার্ভিস ড্রপ স্থানান্তরের আবেদনের জন্য

৫০০/- টাকা

শিল্প প্রতিষ্ঠানের সংযোগের জন্য (জি.পি)

২৫০০/- টাকা

বৃহৎ শিল্প (এল.পি)-

৫০০০/- টাকা

 লোড বৃদ্ধির জন্য-

 

(০-১০) কিঃওঃ

১০০০/- টাকা

(১১-৪৫) কিঃওঃ

২০০০/- টাকা

(৪৬- তদুর্ধ) কিঃওঃ

৫০০০/- টাকা

 

 

৪।   নতুন সংযোগের জন্য জামানতের পরিমানঃ

 

ক্রঃ নং

গ্রাহক শ্রেণী

লোডের বিবরণ /নিরুপনের পদ্দতি

নিরাপত্তা জামানত (টাকা)

ডি,সি,

সিআই

আবাসিক

দাতব্য প্রতিষ্ঠান

বানিজ্যিক

০.৫০ কিঃওঃ পর্যন্ত

৫০০/- টাকা

০.৫০ কিঃওঃ এর উর্দ্ধে এবং ১.০০ কিঃওঃ পর্যন্ত

৬০০/- টাকা

১.০০ কিঃওঃ এর উর্দ্ধে

৬০০/-টাকা+২০০/-টাকা (প্রতি কিঃওঃ) অথবা            প্রতি ভগ্নাংশের জন্য

৫.০০ কিঃওঃ পর্যন্ত

৫.০০ কিঃওঃ এর উর্দ্ধে

সংযুক্ত লোড কিঃওঃ অথবা কেভিএ×০.৯৫×৮ঘঃ×২৫দিন ×২মাস বিদ্যুৎ মুল্য হার(টাকা প্রতি কিঃওঃঘঃ)

জিপি/এলপি

শিল্প

সংযুক্ত লোড কিঃওঃ অথবা কেভিএ×০.৯৫×৮ঘঃ×২৫দিন ×২মাস বিদ্যুৎ মুল্য হার(টাকা প্রতি কিঃওঃঘঃ)

রাস্তার বাতি

-

৬(ছয়) মাসের নূন্যতম বিলের সমপরিমান

 

 নোটঃ

যে কোন ধরনের সরকারী প্রতিষ্ঠান হতে লীজ গ্রহণকৃত জমিতে স্থাপিত স্থাপনা সংযোগ প্রদানের ক্ষেত্রে গ্রাহককে নিয়ম অনুযায়ী জামানতের অতিরিক্ত হিসাবে প্রতি কিঃওঃ বা অংশ বিশেষ লোডের জন্য ১০০০/-(এক হাজার) টাকা অতিরিক্ত জামানত প্রদান করতে হবে। তবে ব্যক্তিগত জমির লীজ গ্রহনের মাধ্যমে সংযোগের ক্ষেত্রে এর পরিমান হবে প্রতি কিঃওঃ বা অংশ বিশেষ লোডের জন্য ৫০০/-(পাঁচশত) টাকা।

 

৫। সাময়িক ও অস্থায়ী বিদ্যুৎ সংযোগঃ

      সামাজিক ও ধর্মীয় অনুষ্ঠান, বানিজ্যিক কার্যক্রম এবং নির্মান কাজের নিমিত্তে ও স্বল্প কালীণ সময়ের জন্য অস্থায়ী বিদ্যুৎ সংযোগ গ্রহণ করতে পারবেন। সে ক্ষেত্রে গ্রাহক কে সমীক্ষা ফি সহ নির্ধারিত লোড ও অস্থায়ী সংযোগের সময় উল্লেখ করে আবেদন করতে হবে। সমীক্ষান্তে অস্থায়ী সংযোগ প্রদান সম্ভব হলে নির্দিষ্ট সময়ের জন্য আনুমানিক বিদ্যুৎ বিল, সার্ভিস চার্জ, ডিমান্ড চার্জ, ট্রান্সফরমার ভাড়া অর্থ, সংযোগ ও বিচ্ছিন্ন ফি, প্রয়োজনীয় মালামালের মূল্য (১১০%) অগ্রীম জমা প্রদান করতে হবে। সংযোগ শেষে ব্যবহৃত মালামাল ব্যবহার যোগ্য অবস্থায় সমিতিতে প্রাপ্ত হলে মালামাল অবচয় মূল্য ১০% বাদে ১০০% ফেরৎ দেওয়া হবে। উল্লেখ্য যে, বিদ্যুৎ ব্যবহার যদি প্রদত্ত বিল অপেক্ষা বেশী হয় সে ক্ষেত্রে উপরোক্ত মালামালের মূল্য হতে কর্তন পূর্বক অবশিষ্ট অর্থ গ্রাহককে ফেরৎ প্রদান করা হবে।

 

ট্রান্সফরমার চার্জঃ

 

    ক) ট্রান্সফরমার স্থাপন এবং রিমুভাল চার্জ বাবদ ১ফেজ ২০০০/- টাকা এবং ৩ ফেজ এর ক্ষেত্রে

         ৪০০০/- টাকা অগ্রীম প্রদান করবেন (অফেরৎ যোগ্য)।

     খ) মাসিক ভাড়া ১ ফেজের ক্ষেত্রে ১০০০/- টাকা এবং ৩ ফেজ এর ক্ষেত্রে ২০০০/- টাকা অথবা

         প্রতি কেভিএ ৬০/- টাকা হাবে দুই এর মধ্যে যেটি বেশী তা বিদ্যুৎ বিলের সাথে আদায়যোগ্য

         হবে।

     গ) ভাড়া প্রদানের ক্ষেত্রে সর্বোচ্চ দুই বছরের জন্য ভাড়া দেওয়া যাবে।

 

৬।  লোড বৃদ্ধিঃ

 

*        নির্ধারিত সমীক্ষা ফি প্রদান করতে হবে।

*        লোড বৃদ্ধির জন্য অতিরিক্ত কিঃওঃ বিদ্যমান হারে জামানত ও প্রযোজ্য ক্ষেত্রে অফেরৎ যোগ্য

         জামানত প্রদান করতে হবে।

*       অতিরিক্ত লোডের জন্য লাইন /সার্ভিস তার /ট্রান্সফরমার আপগ্রেড প্রয়োজন হলে উক্ত ব্যয়

    গ্রাহক কে বহন করতে হবে।

*       সংযোগ বিচ্ছিন্ন ও পুনসংযোগ ফি প্রদান করতে হবে (প্রযোজ্য ক্ষেত্রে)।

*       সমিতির সাথে পুর্ণ সার্ভিস চুক্তি সম্পন্ন করতে হবে।

*       মান অনুযায়ী আভ্যন্তরিন পুর্ন ওয়্যারিং সম্পন্ন করতে হবে।

*          প্রযোজ্য ক্ষেত্রে আবেদকারীকে ট্রান্সফরমার সরবরাহ করতে হবে।

 

৭।  গ্রাহকের সংযোগ এর মালিকানা পরিবর্তন পদ্ধতিঃ

 

      গ্রাহক ক্রয় সূত্রে/ওয়ারিশ সুত্রে/লীজ সুত্রে জায়গা ও প্রতিষ্ঠানের মালিক হলে ক্রয়/হস্তান্তর দলিলে সত্যায়িত ফটোকপি, জাতিয় পরিচয় পত্রের ফটোকপি, ০২কপি সত্যায়িত ছবি সহ নাম পরিবর্তনের জন্য আবেদন করতে হবে। বকেয়া পরিশোধ (প্রযোজ্য ক্ষেত্রে) জামানত প্রদান সদস্য ফি সহ চুক্তি সম্পাদন করতে হবে। এবং নিম্নোক্ত হারে মালিকানা পরিবর্তন ফি জমা দিতে হবে।

০১

সকল ৩ ফেজ সংযোগ এর জন্য

১০০০/- টাকা

০২

সকল ১ ফেজ সংযোগ এর জন্য

৫০০/- টাকা

০৩

সকল বানিজ্যিক সংযোগ এর জন্য

২০০/- টাকা

০৪

সকল আবাসিক সংযোগ এর জন্য

১০০/- টাকা

 

৮। মিটার পরীক্ষা ফিঃ

 

০১

আবাসিক/বানিজ্যিক/                সিআই/রাস্তার বাতি

০১ ফেজ

১০০/- টাকা

০৩ ফেজ

২০০/- টাকা

০২

সেচ

০১ ফেজ

২০০/- টাকা

০৩ ফেজ

৪০০/- টাকা

০৩

জিপি

০১ ফেজ

২০০/- টাকা

০৩ ফেজ (ডিমান্ড ছাড়া)

৪০০/- টাকা

০৩ ফেজ (ডিমান্ড সহ)

১০০০/- টাকা

এলপি

০৩ ফেজ (ডিমান্ড সহ)

১০০০/- টাকা

 

৯।  গ্রাহকের সংযোগ বিচ্ছিন্ন ফিঃ

 

ক্রঃ নং

গ্রাহক শ্রেণী

সংযোগের বিবরণ

সংযোগ বিচ্ছিন্ন ফি (টাকা)

পুন:সংযোগ ফি (টাকা)

আবাসিক                                 ও                                     দাতব্য প্রতিষ্ঠান

-

১০০/- টাকা

৫০/- টাকা

বানিজ্যিক

৫ কিঃওঃ পর্যন্ত

১৫০/- টাকা

৭৫/- টাকা

৫ কিঃওঃ উর্দ্ধে

২০০/- টাকা

১০০/- টাকা

রাস্তার বাতি

-

১০০/- টাকা

১০০/- টাকা

সেচ

০১ ফেজ

১০০/- টাকা

১০০/- টাকা

০৩ ফেজ

২০০/- টাকা

২০০/- টাকা

শিল্প (জি.পি/এলপি)

০১ ফেজ

২০০/- টাকা

২০০/- টাকা

০৩ ফেজ ১০ কেভিএ পর্যন্ত

২০০/- টাকা

২০০/- টাকা

০৩ ফেজ ১১-৪৫ কেভিএ পর্যন্ত

৫০০/- টাকা

৫০০/- টাকা

০৩ ফেজ ৪৬-৭৫ কেভিএ পর্যন্ত

৭৫০/- টাকা

৭৫০/- টাকা

০৩ ফেজ ৭৬-১৫০কেভিএ পর্যন্ত

১০০০/- টাকা

১০০০/- টাকা

০৩ ফেজ ১৫১ কেভিএ এর উর্দ্ধেত

১৫০০/- টাকা

১৫০০/- টাকা

 

১০। পার্শ্ব সংযোগ জরিমানাঃ

 

আবাসিক প্রতিটির জন্য

২৫০/- টাকা

বানিজ্যিক প্রতিটির জন্য

৫০০/- টাকা

সেচ প্রতিটির জন্য

১৫০০/- টাকা

শিল্প প্রতিটির জন্য

৩০০০/- টাকা

 

১১। বিদ্যুৎ বিভ্রাট এর অভিযোগঃ

 

      বিদ্যুৎ সরবরাহ ইউনিটের নির্দিষ্ট অভিযোগ কেন্দ্র এ আপনার বিদ্যুৎ বিভ্রাটে অভিযোগ জানানো হলে আপনাকে অভিযোগ নম্বর নিস্পত্তির সম্ভব্য সময় জানিয়ে দেওয়া হবে। অভিযোগ নম্বর ক্রম অনুসারে আপনার বিদ্যুৎ বিভ্রাট দুরিভূত করার লক্ষ্যে ২৪ ঘন্টার মধ্যে নিস্পত্তির ব্যবস্থা নেওয়া হবে। কোন কোন ক্ষেত্রে যদি নির্ধারিত সময়ে বিদ্যুৎ বিভ্রাট দুরিভূত করা সম্ভব হয় তার কারণ গ্রাহককে অবহিত করা হবে।

 

১২। অবৈধ ভাবে বিদ্যুৎ ব্যবহার মিটারে হস্তক্ষেপ বাইপাস বিনা অনুমতিতে সংযোগ গ্রহণ ইত্যাদি ক্ষেত্রে আইনগত ব্যবস্থাঃ

 

বিদ্যুৎ আইনের (Electricity Act, 1910&As Amendment “The Electricity (Amendment) Act, 2006)৩৯ ধারা অনুসারে এ ক্ষেত্রে নুন্যতম ১-৩ বছর পর্যন্ত জেল এবং ১০ হাজার টাকা পর্যন্ত জরিমানার বিধান রয়েছে। তাছাড়া অবৈধভাবে বিদ্যুৎ ব্যবহারের জন্য প্রতি ইউনিট বিদ্যুতের মুল্যে ৩গুন হারে বেশী বিদ্যুৎ বিল প্রদান করতে হবে। এছাড়া উক্ত বিদ্যুৎ ব্যবহার দ্বারা যদি বিদ্যুৎ সরবরাহ সংস্থার বৈদ্যুতিক সরঞ্জাম, মিটারিং ইউনিট ইত্যাদি ক্ষতিগ্রস্থ হয় তবে ক্ষতিগ্রস্থ বৈদ্যুতিক সরঞ্জাম মিটার মিটারিং ইউনিট ইত্যাদি পুনরায় সচল করা গেলে মেরামত খরচ অথবা সম্পন্ন ধবংশ প্রাপ্ত বা পুনরায় সচল করা যাবে না। এরুপ সরঞ্জামের জন্য পুনস্থাপনের ব্যয়সহ প্রকৃত মুল্য আদায় করা হবে।